ঢাকাThursday , 12 August 2021
সর্বশেষ সব

আপনার মোবাইল বৈধ নাকি অবৈধ জেনে নিন। Mobile Verification

Link Copied!

অবৈধভাবে মোবাইল আমদানি এবং চুরি রোধে বাংলাদেশ টেলিকম রেগুল্যাটরি কমিশন তথা বিটিআরসি সকল ধরনের মোবাইল নিবন্ধনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর আগে বিটি আর সি সিম কার্ডের নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছিল গ্রাহকের জাতীয় পরিচয়পত্র বা এন আই ডির মাধ্যমে।

একইভাবে ফোনের আই এম ই আই এর মাধ্যমে হ্যান্ডসেটগুলোও নিবন্ধনের আওতায় আনছে। যে সেটগুলো বৈধভাবে আমদানি করা হবে অথবা দেশে উতপাদিত হবে সেগুলোর আইএমইআই(IMEI) বিটিআরসির ডাটাবেইজে সংরক্ষিত থাকবে। যদি বৈধ সেট হয় নতুন মোবাইল সেট কিনার পর যে সিম মোবাইলে প্রবেশ করানো হবে সয়ংক্রিয়ভাবে সেটের IMEI উক্ত সিমের এন আইডির সাথে যুক্ত হয়ে যাবে। পরবর্তীতে যদি সেটটি চুরি হয়ে যায় এবং কেউ অন্য সিম প্রবেশ করায় তাহলে সেই সেটটি কাজ করবেনা। অর্থাৎ সেই ফোন দিয়ে কল করা যাবেনা। এর মাধ্যমে চুর সনাক্ত করাও সহজ হবে। সিম না চললেও সেই সেই সেট ওয়াইফাই সহ অন্যান্য কাজে ব্যবহার করা যাবে।  তবে আগের মতো IMEI চেঞ্জ করে ব্যবহার করা যাবেনা বা বাইপাস করা যাবেনা।

আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে জানতে পারবেন কিভাবে বৈধ মোবাইল চেক করতে হয়।
বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসি সংস্থাটি চাচ্ছে অবৈধ মোবাইল যেন বাংলাদেশের ব্যবহারকারীরা কোন ভাবেই ব্যবহার করতে না পারে, সেজন্য এই উদ্যোগ নিয়েছে।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসির পক্ষ থেকে এটিও জানানো হয়েছে যে ভবিষ্যতে অবৈধ মোবাইলগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশংকা রয়েছে।

মোবাইলটি বাংলাদেশের বৈধ কি না, গ্রাহক তার ফোনের আইএমইআই নাম্বার এর মাধ্যমে যাচাই করতে পারবে। বৈধ সেটগুলোর IMEI বিটি আরসির ডাটাবেইজে সংরক্ষিত আছে। এর বাইরের সেটগুলো অবৈধ হিসেবে গণ্য হবে অর্থাৎ এগুলো সঠিক নিয়ম মেনে আমদানি করা হয়নি।

বৈধ মোবাইল যাচাই করার উপায়

মোবাইল বৈধতা যাচাই করনের জন্য মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করতে হবে KYD একটি স্পেস দিয়ে 15 ডিজিটাল আই এম ই আই (IME) নাম্বার লিখে 16002 নাম্বারে পাঠাতে হবে,

ফিরতি এসএমএস এর মাধ্যমে জানা যাবে আপনার কাঙ্খিত মোবাইলটি বৈধ কিনা।

যেমনঃ KYD <space> 123456789012345 পাঠিয়ে দিন 16002 নাম্বারে।

“ডিভাইসটির IMEI বিটিআরসির ডাটাবেজে পাওয়া গেছে”
এরকম মেসেজ যদি পেয়ে থাকেন তাহলে আপনার পাঠানো আই এম ই আই এর মোবাইলটি বৈধ।

আর আপনার মেসেজটি যদি এরকম হয় “ডিভাইসটির আই এম ই আই বিটিআরসির ডাটাবেজে পাওয়া যায়নি” তাহলে বুঝতে হবে মোবাইলটি অবৈধ যা বাংলাদেশ বৈধভাবে আমদানিকৃত না।

অনেক সময় মেসেজ পাঠানোর পর-

“কারিগরি ত্রুটির কারণে এই মুহূর্তে সেবাটি দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। অনুগ্রহ করে কিছুক্ষন পর আবার চেষ্টা করুন”

এই রকম রিপ্লে আসতে পারে। তখন পুনরায় আগের নিয়মেই মেসেজ পাঠাতে হবে।

তবে কেউ যদি সেট বিক্রি করে তাহলে নির্দিষ্ট কিছু তথ্য দিয়ে সেটি নিজের নামে নিবন্ধন করে নিতে হবে।

তাই সেট ক্রয় করার আগে সেটি চেক করে নিতে হবে সেটির আই এম ই আই বিটি আরস্যার ডাটাবেইজে সংরক্ষিত আছে কিনা । নিজের ফোনটিও চেক করে দেখতে পারেন সেটি বৈধভাবে আমদানি করা হয়েছিল কিনা।

 

বিদেশ থেকে আমদানি করা সেটের আই এম ই আই যেহেতু বিটি আরসির ডাটাবেইজে থাকবেনা, সেগুলো দেশে আনার পর নিবন্ধন করে নিতে হবে সেজন্য সেট ক্রয়ের রশিদ এবং বক্স সাথে আনতে হবে।

আপনার যদি আরো কোনো তথ্য জানার থাকে তাহলে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি ভিজিট করুন এবং যেকোনো ভিডিওর নিচে কমেন্ট করুন। চ্যানেল লিংক:  ক্লিক করুন 
     আমাদের পেইজে লাইক দিন
error: Content is protected !!