মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০২ পূর্বাহ্ন

বিমানের ব্লাকবক্স কি? চলুন জেনে নেই

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে বৃহস্পতিবার, ২০ আগস্ট, ২০২০
  • ১৯ বার পড়া হয়েছে

১৯৫৬ সালে ডেভিড ওয়ারেন ব্ল্যাকবক্স আবিষ্কার করেন। যে কোন বিমান দূর্ঘটনর পরেই যে যন্ত্রটির কথা ঘুরে ফিরে আসে তার নাম হলো ব্ল্যাকবক্স।বিমান উড্ডয়নের পর বিমানের ককপিটে পাইলটের কথা থেকে শুরু করে বিমানের কারিগরি তথ্যের অনেক কিছু থাকে এই যন্ত্রে। বিশেষভাবে তৈরি হওয়ায় বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার পরও এই যন্ত্র অক্ষত অবস্থায় থাকে।ফলে দূর্ঘটনা কবলিত বিমানের এই যন্ত্র উদ্ধার করা গেলে দূর্ঘটনার কারণ জানা সহজ হয়।
এই যন্ত্রটির নাম ব্ল্যাক বক্স হলেও এটি কালো না। বরং দূর্ঘটনার পর এই যন্ত্রটি যেন সহজে পাওয়া যায় তাই এর রং থাকে সবসময়ই উজ্জ্বল এবং কমলা। এই যন্ত্রের গায়ে ছোট একটা ‘বিকন ইউনিড’ যুক্ত থাকে, যা থেকে উচ্চ কম্পাঙ্কের শব্দ তরঙ্গ বের হয়। এই শব্দ তরঙ্গ এতোই জোরালো যে, ২০০০০ ফুট পানির নিচে থাকলেও বিশেষ যন্ত্রের সাহায্যে বক্সটির অস্তিত্ব টের পাওয়া যায়।
এই যন্ত্রের তাপ ও চাপ সহ্য ক্ষমতা এতোই যে, ২০০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রায় ঘন্টার পর ঘন্টা ফেলে রেখে ওটাকে ৫০০ পাউন্ড ওজনের ভারী ইস্পাতের দন্ড দিয়ে ১০ ফুট উঁচু থেকে ক্রমাগত আঘাত করলেও কোন ক্ষতি হয় না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
ডিজাইন: Nagorikit.com (নাগরিক আইটি)
themesba-lates1749691102