মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০২ পূর্বাহ্ন

জুম ব্যবহারে লক্ষ্য রাখতে হবে যে বিষয়ে।

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে বৃহস্পতিবার, ২০ আগস্ট, ২০২০
  • ১১ বার পড়া হয়েছে

করোনা ভাইরাসে কারণে সারা পৃথিবী গত ৪/৫ মাস যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন । শারীরিক যোগাযোগ বিচ্ছিন হলেও ইন্টারনেটে শুভাধে যোগাযোগ রয়েছে পৃথিবীর এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তের সাথে।

অনেক মাধ্যম থাকলেও এ করোনার মধ্যে যে মাধ্যমটি আলোড়ন সৃষ্টি করেছে তার নাম হলো zoom(জুম)।

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠান ‘হোম অফিস বা ওয়ার্ক ফ্রম হোম’ চালু করেছে। এ কারণে বাসা থেকেই করতে হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ সব কাজ। এমনকি মিটিংও সারতে হচ্ছে অনলাইনে। এক্ষেত্রে গত কয়েকমাসে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে জুম নামের অ্যাপটি।উইন্ডোজ, আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের জন্য সমান কার্যকর জুম অ্যাপ। এর সাহায্যে মিটিং করা যাবে কোনও বাড়তি ঝামেলা ছাড়াই।

জুম অ্যাপে মিটিং করার জন্য শুরুতেই আপনাকে ‘জুম ক্লাউড মিটিংস’ নামের অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে। অ্যাপ ডাউনলোডের সময় কিছুটা সতর্ক থাকতে হবে। কারণ, জুম নামের অনেক অ্যাপ রয়েছে। এগুলো দিয়ে অনেক ধরনের কাজ করা যায়। আপনি মিটিংয়ের জন্য যে অ্যাপটি চাচ্ছেন সেটিই ডাউনলোড করুন।

জুম অ্যাপ ডাউনলোডের পর ইনস্টল প্রক্রিয়া শেষ হলে একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। গুগল কিংবা ফেসবুক অ্যাকাউন্টের সাহায্যেও জুম অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন।

জুম অ্যাপে অ্যাকাউন্ট খোলার পর নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন

প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সাইন ইন বাটনে চাপ দিন; লগইন হওয়ার পর চারটি অপশন পাওয়া যাবে, এগুলো হলো- নিউ মিটিং, জয়েন, শিডিউল এবং শেয়ার স্ক্রিন; নিউ মিটিং অপশন থেকে আপনি মিটিং শুরু করতে পারবেন, এই অপশন থেকে জুম আইডি, ইমেইল অ্যাড্রেস বা মিটিংয়ের নাম ব্যবহার করে যে কাউকে আমন্ত্রণ জানানো যাবে; জয়েন অপশনের মাধ্যমে অন্য কারও আমন্ত্রণে কোনও মিটিংয়ে যোগ দেওয়া যাবে, এক্ষেত্রে ব্যবহার করতে হবে মিটিং আইডি ও পাসওয়ার্ড; মিটিংয়ের শিডিউলের জন্য শিডিউল অপশন ব্যবহার করতে হবে, অন্যদিকে প্রেজেন্টেশনের ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে হবে শেয়ার স্ক্রিন অপশন; মিটিং শেষ হলে নিচের ডান কোণে থাকা ‘এন্ড মিটিং’ অপশনে ক্লিক করতে হবে।

••••••••••••>>>>>>>>

??কোন প্রোগ্রাম বা মিটিং এ জয়েন্ট হওয়ার পর যে বিষয়গুলো আপনাকে/আমাকে খেয়াল রাখতে হবে।

??????????????????????????????

অনলাইন মিটিং বা ট্রেনিং এ যে ৩ টা বিষয় মাথায় রাখতে হবে ঃ

১। Zoom লগইন করেই নিজের মাইক মিউট করে দিতে হবে। পুরো মিটিং/সেশান চলা কালীন কোন অবস্থাতেই আপনার মাইক অন রাখা যাবে না (আপনার কথা বলার সময় ছাড়া)।

২। আপনি কথা বলতে চাইলে Raise Hand এ ক্লিক করবেন বা হাত তুলে জানান দিবেন। আপনাকে যখন কথা বলতে বলা হবে, তখন কথা বলবেন। অন্য আরেকজন কথা বলার মাঝখানে কথা বলবেন না।

৩। ক্যামেরা অন রেখে অন্য কোন কাজ করা যাবে না, আপনার যদি কোন ইমারজেন্সি কল আসে বা কোন কাজ করতে হয়, ক্যামেরা অফ করে করবেন।

এতে মিটিং/ সেশানের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পাবে – এটাও একটা স্কিল

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
ডিজাইন: Nagorikit.com (নাগরিক আইটি)
themesba-lates1749691102